আজ || মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২
শিরোনাম :
  তালায় ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টে সৈকত একাডেমি চ্যাম্পিয়ন       তালায় বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ বিষয়ক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত       সাতক্ষীরায় সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে কনসালটেশন ম্যাপিং সভা       শ্যামনগরে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্পের মুক্ত আলোচনা       শ্যামনগরে একে ফজলুল হক এমসিএ কলেজে সুধী সমাবেশ       শ্যামনগর উপজেলা অনলাইন নিউজ ক্লাবের কমিটি গঠন, সভাপতি মিলন, সম্পাদক বাবুল       নীতি-আদর্শের কারনে সাংবাদিকরা যে সম্মানিত হতে পারে সুভাষ চৌধুরী তার অনন্য উদাহরণ –মনজুরুল আহসান বুলবুল       সাতক্ষীরায় জেলা কৃষকলীগের তৃণমূলের মতামত কে উপেক্ষা করে কমিটি ঘোষনার প্রতিবাদে জেলা কৃষকলীগের অধিকাংশ কাউন্সিলরদের সংবাদ সম্মেলন       বঙ্গবন্ধুর মাজার জিয়ারত ও শ্রদ্ধা নিবেদন করল সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ       পদ্মপুকুরে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত    
 


স্বাস্থ‌্যকর্মীকে ঝুপড়ি ঘরে রাখার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নিজ গ্রাম লখন্ডায় গিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনের নামে স্বাস্থ‌্যকর্মী বর্বরতার শিকার হওয়ার ঘটনায় তিন সদস‌্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকালে কোটালীপাড়ার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোহসিন উদ্দিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন- কোটালীপাড়া থানার পরিদর্শক মো. জাকারিয়া ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শ্রীময়ী বাগচী।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাহফজুর রহমান জানিয়েছেন, আগামী তিন দিনের মধ্যে বিষয়টি তদন্ত করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেবেন।

গত মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) ঢাকার ইমপালস হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়ে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার সাদুল্যাপুর ইউনিয়নের লখন্ডা গ্রামের নিজ বাড়িতে ফেরেন স্বাস্থ্যকর্মী লোপা মল্লিক (২১)।

এরপর সাদুল্যাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রশান্ত বাড়ৈ এর নির্দেশে এলাকাবাসী লোপার বাড়ির প্রায় ৪০০ মিটার দূরে একটি নির্জন স্থানে পুকুরের ভেতর তালপাতা দিয়ে ঝুপড়ি ঘর তৈরি করে দেয়। সেখানে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে রোদে পুড়ে বৃষ্টিতে ভিজে তিনি সেখানে অবস্থান করেন।

বিষয়টি গণমাধ্যম এবং স্যোসাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র নিন্দার ঝড় ওঠে। নড়ে চড়ে বসে প্রশাসনও। গতকাল সোমবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে সেখানে ছুটে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাহফুজুর রহমান ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সুশান্ত বৈদ্য।

পরে তার খোঁজ খবর নেন এবং তাকে তাদের বাড়ির অপর একটি ঘরে কোয়ারেন্টাইনে রাখেন। সেই সাথে এ ঘটনার সাথে যে বা যারা জড়িত তাদেরকে শাস্তির আওতায় আনারও প্রতিশ্রুতি দেন ইউএনও।

এদিকে, বিষয়টিকে ভিন্ন খাতে নিতে ওই এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল ইতোমধ্যে মাঠে নেমে গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। ইতোমধ্যে তারা ওই স্বাস্থ্যকর্মীকে দিয়ে লিখিয়ে নিয়েছে যে, তিনি নিজের ইচ্ছায় ওই পুকুরের মধ্যে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘গতকাল সে একভাবে বলেছে, আর আজকে ভিন্নভাবে বলছে। তদন্তকারী দল সবকিছু বিবেচনায় এনে তারপর তাদের প্রতিবেদন দাখিল করবেন এবং সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য, ঢাকার ইমপালস হাসপাতালে চাকুরি করতেন এই নারী স্বাস্থ্য কর্মী। করোনা ভাইরাসের কারণে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে ছুটি দিয়ে দেয়। ছুটিতে তিনি বাড়িতে আসেন।

তার বাড়ি ফেরার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সাদুল্যাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রশান্ত বাড়ৈর নির্দেশে এলাকাবাসী এই নারী স্বাস্থ্য কর্মীকে তার বাড়ির প্রায় ৪০০ মিটার দূরে একটি নির্জন স্থানে পুকুরের ভিতর তালপাতা দিয়ে ঝুপড়ি ঘর তৈরি করে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখেন।


Top