আজ || সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২
শিরোনাম :
 


সাংবাদিক কামরুজ্জামান খাদ্যসামগ্রী দিলেন ২০০ পরিবারকে

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মহামারি রূপ নিয়েছে। এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। এটি প্রতিরোধে দেশে ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। সবধরনের সরকারি-বেসরকারি অফিস আদালত বন্ধ। লকডাউন থাকায় গণপরিবহন থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় ছাড়া দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। এতে করে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হতদরিদ্র পবিবার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সাতক্ষীরার পাটকেলঘাটা থানার অনেক হতদরিদ্র পরিবার রয়েছে যারা দৈনিক শ্রম বেচে, দিনমজুর, ভ্যান, অটোরিকশা বা মাহিন্দ্র চালিয়ে আবার কেউ বা অন্যের দোকানে কাজ করে সংসার চালান। প্রায় টানা ২০ দিন এসব পেশার মানুষ তাদের কর্মকাণ্ড চালাতে পারছেন না। এতে বিপাকে পড়েছেন তারা। অনেকের অনাহারে দিন যাচ্ছে। সরকার থেকে ত্রাণ পেলেও পাটকেলঘাটার ওভার ব্রিজের নিচের বস্তিবাসী এবং পার্শ্ববর্তী কিছু গ্রামের মানুষের কাছে এটা তেমন কিছু না। কারোর দুই দিন কারোর বা বড়জোর পাঁচ দিন চলে এই ত্রাণ সামগ্রী। বাকি সময়ে তাদের না খেয়ে দিন যাচ্ছে।

এবতাবস্থায় স্থানীয় সাংবাদিক মো. কামরুজ্জামান মোড়ল এগিয়ে এসেছেন। তার ব্যক্তিগত উদ্যোগে দিনে রাতে স্বশরীরে পাটলেঘাটা বস্তি, তৈলকুপি, যুগিপুকুরসহ বেশ কিছু এলাকার দুইশ পরিবারকে তিনি চাল, ডাল এবং আলু বিতরণ করেছেন।

জানাতে চাইলে  কামরুজ্জামান জানান, এলাকার অনকে গরিব মানুষ আছে যাদের সকালে খাবার থাকলে রাতে নেই। এমন মানুষের খোঁজ পেয়ে আমি নিজ উদ্যোগে কিছু সহায়তার চেষ্টা করেছি। দুইশ পরিবারকে ইতিমধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছি। এটি অব্যাহত থাকবে।


Top