আজ || বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
শিরোনাম :
  আমন মৌসুমে ব্রী ধান ৭৫ জাতের আগাম রোপণে সাফল্য পেয়েছে কৃষক রফিকুল       তালায় সামাজিক সম্প্রতি ও দুধে ভেজাল প্রতিরোধে শীর্ষক আলোচনা       সাতক্ষীরায় মাল্টি স্টেকহোল্ডার কোঅডিনেশন কমিটির ত্রৈমাসিক সভা       বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস উপলক্ষে সাতক্ষীরায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত       সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন       তালায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালিত       তালায় জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা নির্মূল করণে প্রশিক্ষণ       তালায় আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত       তালায় জুয়া খেলার সময় ৭ জুয়ারী আটক       তালায় জাতীয় মহিলা সংস্থা উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালিত    
 


শুদ্ধসুরে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন প্রতিযোগিতায় জেলা পর্যায়ে তালা মহিলা কলেজ প্রথম

শুদ্ধসুরে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন প্রতিযোগিতায় জেলা পর্যায়ে তালা মহিলা কলেজ প্রথম

শুদ্ধসুরে জাতীয় সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় সাতক্ষীরা জেলায় কলেজ পর্যায়ে তালা মহিলা ডিগ্রী কলেজ প্রথম স্থান অধিকার করেছে। বৃহষ্পতিবার সকাল ১১ টায় সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমীতে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সাতটি উপজেলায় প্রথম স্থান অধিকারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজগুলোকে ক, খ ও গ গ্রুপ ভাগ করে বৃহষ্পতিবার জেলা পর্যায়ে সাতক্ষীরা শিল্পকলা একাডেমীতে শুদ্ধসুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের জন্য ডাকা হয়। সে অনুযায়ি আবু আফফান রোজ বাবু, শহীদুল ইসলাম, মুসফিকুর রহান মিল্টন ও শ্যামল সরকারকে পর্যবেক্ষক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। বৃহষ্পতিবার দুপুর দু’ টায় প্রতিযোগিতা শেষে ‘ক’ গ্রুপ পিএন ব্যায়াম ল্যাবরেটরিজ স্কুল প্রথম, কলারোয়ার শ্রীপতিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় দ্বিতীয় ও পাটকেলঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় তৃতীয় স্থান অধিকার করে।


‘খ’ গ্রুপ এ সাতক্ষীরা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রথম, তালার কুমিরা বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় দ্বিতীয় ও শ্যামনগরের নকিপুর হরিচরণ সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় তৃতীয় স্থান অধিকার করে।
‘গ’ গ্রুপ তালা মহিলা ডিগ্রী কলেজ প্রথম, সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ দ্বিতীয় স্থান ও দেবহাটা কেপিএ সরকারি ডিগ্রী কলেজ তৃতীয় স্থান অধিকার করে।
প্রথম স্থান অধিকারীদের হাতে সনদপত্র তুলে দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ বদিউজ্জামান। তিনি বলেন, বিভাগীয় প্রতিযোগিতায় শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনে একাধিক প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীদের বাছাই করতে হবে। তাদেরও একসাথে করে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া অভ্যাস করতে হবে।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা জাতীয় সঙ্গীত আমাদের দেশ ও জাতির স্বত্বা। এ সঙ্গীতকে অবহেলা করা যাবে না। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয় সঙ্গীত গাওয়া বাধ্যতামুলক। একইসাথে এ সঙ্গীতকে শুদ্ধসুরে পরিবেশন করতে শিখতে হবে।


Top