আজ || মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২
শিরোনাম :
  তালায় জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী নজরুল ইসলামের মতবিনিময়       শ্যামনগরে উত্তরণের বিশ্ব শিশু অধিকার সপ্তাহ উদযাপন       তালায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস পালিত       ‘অভিযোগ পেলেই কেবল ব্যবস্থা’       তালায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ       তালায় সাবেক সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমানের পূজা মন্ডপ পরিদর্শন       তালায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস       তালায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির       সাংবাদিক তোয়াব খানের মৃত্যুতে তালা প্রেসক্লাবের শোক       তালায় কেন্দ্রীয় পানি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত    
 


ভোগান্তি এড়াতে স্থায়ী বাস স্টান্ড চায় তালাবাসী

সড়কে জ্যামের ভোগান্তি এড়াতে স্থায়ী বাস স্টান্ডের দাবি তালাবাসীর । কিন্তু সে দাবি আজও পূরণ হয়নি। তালা উপশহরের রিমু কসমেটিক্স মোড়, রফিক ফটোস্টাট মোড়, ডাক বাংলো মোড়, পুরাতন থানা মোড় এবং খেয়াঘাট মোড়ের দিকে তাকালেই বাস, ট্রাক, ইজিবাইক ও মোটর ভ্যানের জটলা চোখে পড়ে। উপশহরে নির্দিষ্ট স্থানে বাস স্টান্ড না থাকায় খুলনা-পাইকগাছা গামী বাসগুলো উপশহরের রিমু কসমেটিক্স মোড়ে থেমে যাত্রী উঠানামা করায়। এতে জটলা দীর্ঘতর হয়। এতো গেলো দিনের বেলার চিত্র। সন্ধ্যা হলেই

ঢাকাগামী বিভিন্ন পরিবহন যাত্রী নেওয়ার জন্য উপশহরের প্রধান সড়কের উপর যত্রতত্র দীর্ঘক্ষণ দাড়িয়ে থাকে তখন সড়ক দিয়ে চলাচল করা ছোটবড় বিভিন্ন ধরণের পরিবহণ, পথচারী, তিন চাকর মহেন্দ্র, ইজিবাইক, মোটর ভ্যান চালকসহ স্থানীয় ব্যবসায়ীদের পড়তে হয় চরম ভোগান্তিতে।
দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন মহল থেকে তালা উপজেলা সদরে গণপরিবহনের জটলা থেকে তালাবাসীদের মুক্তি দিতে একটা স্থায়ী বাস স্টান্ড নির্মাণের দাবি করা হলেও তা আজও সম্ভব হয়নি।
খুলনা-পাইকগাছা সড়কের বাস চালক রফিকুল ইসলাম বলেন, গাড়ি নিয়ে দুই-চার মিনিট দাড়িয়ে থাকলেই সড়কে জ্যাম তৈরি হয়। নির্দিষ্ট স্থানে বাস স্টান্ড হলে ভালো হয়।

আমরা বন্ধু সংগঠনের সভাপতি এস এম নাহিদ হাসান বলেন, এখই যদি পরিকল্পিতভাবে বাস স্টান্ড তৈরি করা সম্ভব না হয় তাহলে আগামীতে উপজেলাবাসীর ভোগান্তি চরমে উঠবে। তালার উন্নয়নের জন্য স্থায়ী বাসস্টান্ড, বাইপাস সড়ক এখন সময়ের দাবি।
তালা উপজেলা নাগরিক কমিটির নেতা মীর জিল্লুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ফোরামে  আমরা একটা স্থায়ী বাস স্টান্ড নির্মাণের দাবি করে আসছি। কিন্তু কোন ফল আসেনি। স্কুল- কলেজ টাইমে তীব্র জ্যাম সৃষ্টি হয় তালা বাজারে। এমনই অবস্থা সৃষ্টি হয় তাতে রোগীবাহী গাড়িও পার হতে পারে না। জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের নাকের ডগায় এসব ঘটলেও তা তাদের চোখে পড়ে না। দ্রুত বিষয়টি আমলে না নিলে আমরা নাগরিক সমাজ নাগরিক দাবি আদায়ে মাঠে নামবো।

তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক প্রনব ঘোষ বাবলু বলেন, স্থায়ী বাস স্টান্ড নির্মাণের বিষয়টি উপজেলা সমন্বয় সভা ও আইনশৃঙ্খলা সভায় উপস্থাপন করা হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের মধ্যে সমন্বয় হলে বিষয়টি হয়তো দ্রুত সমাধান হবে।
এ বিষয়ে তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ^াস জানান, আমরা ইতিমধ্যে বিভিন্ন পক্ষের সাথে আলোচনা করেছি। তালা থানার সামনে একটি জায়গা আছে সেখানে স্থায়ীভাবে বাস স্টান্ড নির্মাণের পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। অবকাঠামোগত উন্নয়নের বিষয়ে পরিকল্পনা চলছে।


Top