ব্রেকিং নিউজঃ

পাইকগাছার গৌরব পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন এর পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন

পাইকগাছা প্রতিনিধি

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:১৮
  • ২৪৬

প্রশাসনিক কাজ ও কবিতা লেখা সহ নানা ব্যস্ততার মধ্যেও পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেছেন পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক ও পাইকগাছার কৃতি শহীদ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সাবিনা ইয়াসমিন মালা। তিনি ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ-বিজ্ঞান অনুষদ এর অধীনে লোক প্রশাসন বিভাগের তৎকালীন চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোঃ আবুল কাশেম মজুমদারের তত্বাবধায়নে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন।

গত ২৫ জুন ২০২০ইং তারিখে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের বিশেষ সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সাবিনা ইয়াসমিনকে পিএইচডি ডিগ্রী প্রদান করা হয়। তার পিএইচডি’র বিষয় ছিলো “হেল্থ সার্ভিস ডেলিভারী থ্রো কমিউনিটি ক্লিনিক অব বাংলাদেশ এ্যান এ্যাপ্রাইজাল”। সাবিনা ইয়াসমিন অর্জিত এ ডিগ্রী শহীদ পিতা শেখ মাহাতাব উদ্দীন মনি মিয়া ও মরহুম মাতা সালমা বেগমকে উৎসর্গ করেছেন। অচিরেই গবেষণার এ বিষয়টি বই আকারে প্রকাশিত হবে এবং এটি স্বাস্থ্যখাত নিয়ে যারা গবেষণা করেন তাদের জন্য সহায়ক হবে বলে মনে করেন গবেষক সাবিনা।

সাবিনা ইয়াসমিন একাধারে প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তার পাশাপাশি জনপ্রিয় একজন কবি। বর্তমানে তিনি জেলা প্রশাসক হিসেবে পঞ্চগড়ে কর্মরত রয়েছেন। প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কবি হিসেবে লাভ করেছেন একাধিক পদক ও সম্মাননা। দক্ষ ও দায়িত্বশীল কর্মকর্তা হিসেবে পেয়েছেন জনপ্রশাসন পদক। কবি হিসেবেও রয়েছে বেশ খ্যাতি ও জনপ্রিয়তা। ইতোমধ্যে তার ১৬টি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। নন্দিত কবি হিসেবে পেয়েছেন মহাকবি মাইকেল মধুসূদন পদক। শিক্ষা ও চাকুরি ক্যাটাগরিতে পেয়েছেন শ্রেষ্ঠ জয়িতার সম্মাননা।

অসাধারণ প্রতিভার এ কর্মকর্তা ১৯৭১ সালে খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার তৎকালীন গদাইপুর ইউনিয়নের মেলেকপুরাইকাটী গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা শহীদ শেখ মাহাতাব উদ্দীন মনি মিয়া ছিলেন তৎকালীন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালিন সময়ে রাজাকারদের গুলিতে শহীদ হন পিতা মনি মিয়া। পিতাকে হারানোর পর সাবিনা ইয়াসমিনের সাফল্যের পিছনে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছিলেন মাতা সালমা বেগম। চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারী না ফেরার দেশে চলে যান মা সালমা বেগম। ভাই সাবেক প্যানেল মেয়র শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের সরল গ্রামে বসবাস করছেন। সাবিনা ইয়াসমিন ২০০৩ সালে ২১তম বিসিএস (প্রশাসন) কর্মকর্তা হিসেবে সরকারি চাকুরিতে যোগদান করেন।

ব্যক্তিগত জীবনে সাবিনা ইয়াসমিনের স্বামী মোঃ শরীফ হোসেন হায়দার একজন বিচারক। তিনি পঞ্চগড়ের জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। পুত্র রুবাইয়াৎ ইশমাম প্রিয়ন্ত ও কন্যা পুষ্পিতা পারিজাত টিপকে নিয়ে সুখেই রয়েছেন সাবিনা-শরীফ দম্পত্তি।

এদিকে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করায় সাবিনা ইয়াসমিনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জন্মস্থান পাইকগাছা-কয়রার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো: আকতারুজ্জামান বাবু, মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) লিপিকা ঢালী, ভাইস চেয়ারম্যান শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও ভাই শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, রবিউল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার ইকবাল মন্টু, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু, শিব্সা সাহিত্য অঙ্গনের সভাপতি ও সুরাইয়া বানু ডলি, গদাইপুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন লিটন, পাইকগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি এফএমএ রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দীন, কপিলমুনি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জি.এম হেদায়েত আলী টুকু ও শেখ আব্দুস সালাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস.এম আব্দুর রহমান, সাবেক যুগ্ন সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বজলু,সাবেক কোষাধ্যক্ষ জি.এম মোস্তাক আহমেদ প্রমুখ।

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

আরও পড়ুন