আজ || সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২
শিরোনাম :
 


তালায় সরকারি রাস্তার ইট তুলে বিক্রি করলেন ইউপি সদস্য প্রদীপ

তালা (সাতক্ষীরা) :: তালায় সরকারি রাস্তা থেকে ইট তুলে বিক্রয় করার অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্য প্রদীপ মন্ডলের বিরুদ্ধে। এঘটনায় এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। প্রদীপ মন্ডল তালা উপজেলার মাগুরা ইউনিয়নের ৮ ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও মাদরা গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিস সূত্রে জানা যায়, তালার মাদরা গ্রামের একটি ইটের সোলিং রাস্তা চলাচলের অনুপোযোগী হওয়ায় পুণঃনির্মাণের জন্য সরকার টেন্ডার দেয়। মেসার্স সানভি ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ৫শ মিটার হেরিংবোন্ড রাস্তাটি ৯২ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা ব্যায়ে নির্মাণ করছেন।


এলাকাবাসি জানান, মাদরা গ্রামের পিচের রাস্তা হতে মানিক মন্ডলের বাড়ির পাশ দিয়ে হতে কালিবাড়ি অভিমুখে ইটের সোলিয়ের একটি রাস্তা ছিল। স¤প্রতি রাস্তাটি পূনঃনির্মাণের জন্য প্রদীপ ব্যানার্জীর বাড়ি পর্যন্ত মাটি কাঁটা হয়েছে। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম শুরু করার আগেই স্থানীয় ইউপি সদস্য এই রাস্তার পূর্বের ইট উঠিয়ে গ্রামের কয়েকজন ব্যক্তির কাছে বিক্রি করেছেন। এই রাস্তা থেকে ইউপি সদস্য প্রায় ২১ হাজার ইট উঠিয়ে প্রতি হাজার ৬৫০০ টাকা হাজার দরে বিক্রি করেছে ।

মাদরা গ্রামের স্মৃতি গাইন বলেন, মেম্বর প্রদীপের কাছ থেকে এই রাস্তার ইট ৬৫০০ টাকা হাজার দরে আমি কিনেছি। আমি ছাড়াও এ গ্রামের অনেকেই রাস্তার ইট কিনেছে।

মাদরা গ্রামের বাসিন্দা কাত্তিক সরকার (৬০), নলিতা মন্ডল (৫০), হৃদয় মন্ডল (১৮) সহ অনেকেই জানান, ঠিকাদার কাজ করার আগেই আমাদের মেম্বর ইট তুলে কালি বাড়ির মাঠে রেখে বিক্রি করেছেন।

মাগুরা ইউপি চেয়ারম্যান গনেষ দেবনাথ বলেন, মাদরায় ৫০০ মিটার হেরিংবোন্ড রাস্তা তৈরী হচ্ছে। রাস্তাটি আগে ইটের সোলিং ছিল। এই রাস্তার পুরাতোন ইট ওই গ্রামেরই রাস্তা সংস্কারের কাজে লাগানো হবে। ইউপি সদস্য ইট বিক্রয় করেছে কিনা আমার জানা নেই।

অভিযুক্ত প্রদীপ মন্ডল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, শ্রমিক দিয়ে রাস্তার ইট উঠিয়ে বিক্রয় করেছি।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ওবায়দুল হক বলেন, রাস্তা সংস্কার হলে পুরাতোন ইট চেয়ারম্যান মেম্বররা অন্য রাস্তায় কাজে লাগাতে পারবেন। তবে বিক্রয় করার কোনো সুযোগ নেই। আমি শুনেই চেয়ারম্যান’র সাথে কথা বলেছি। রাস্তার ইট বিক্রয় হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, কোনো রাস্তার পুরাতন ইট বিক্রয়ের কোনো সুযোগ নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Top