তালায় প্রসূতির মৃত্যু নিয়ে উত্তেজনা, চিকিৎসক লাঞ্চিত

সেলিম হায়দার :
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১

সাতক্ষীরার তালায় গর্ভবতী রোগীকে খুলনায় রেফার করায় ডাক্তারদের মারপিট করেছে রোগীর স্বজনরা। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) বিকালে তালা হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।
রোগীর স্বজন ও এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে উপজেলার হাজরাকাটী গ্রামের শাহাবুদ্দীন সরদারের স্ত্রী দিনা বেগম (৩০)কে তালা হাসপাতালে ভর্তি করে তার স্বজনরা। বিকালে অপারেশন থিয়েটারে নেয়ার পর চিকিৎসার জানান, রোগির অবস্থা ভালো না, তাকে দ্রুত খুলনায় নেওয়া লাগবে। খুলনা নেওয়ার পথে প্রসূতি মা ও নবজাতক সন্তান উভয়ই মারা যায়।
এতে রোগীর স্বজনরা উত্তেজিত হয়ে হাসপাতালে দায়িত্বরত ডা: অতনু ঘোষ ও ডা: ফারহা ফেরদৌসীকে শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করে। হাসপাতাল কতৃপক্ষের কাছ থেকে এখবর পেয়ে পুলিশ সাথে সাথে হাসপাতালে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

দিনা বেগমের দেবর গিয়াস উদ্দীনের অভিযোগ, ভুল চিকিৎসা হয়েছে। এ কারণেই তাঁর ভাবি ও নবজাতক সন্তান মারা গেছে।
তালা হাসপাতালের সহকারী সার্জন ডাঃ অতনু ঘোষ জানান, গর্ভবতী ঐ রোগীর ব্লাড প্রেসার ও অক্সিজেন আশংকাজনকহারে কমতে থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় যাওয়ার পরামর্শপত্র দেওয়া হয়। এ সময় রোগির স্বজনরা না বুঝেই তাকে লাঙ্গিত করে। হাসপাতালের পক্ষ থেকে বিষয়টি লিখিতভাবে থানায় অবহিত করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মেহেদী রাসেল জানান, একজন রোগির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে হাসপাতাল এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন শাফায়াত জানান, তালায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া গর্ভবতী রোগীর ব্লাড প্রেসার ও অক্সিজেন আশংকাজনকহারে কমতে থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনায় যাওয়ার পরামর্শপত্র দিলে না বুঝেই রোগীর স্বজনরা কর্তব্যরত চিকিৎসকদের মারপিট করে। পরে ওই রোগী রাস্তায় যাওয়ার পথে সন্তান প্রসব করে। এ সময় নবজাতক ও মা মারা যায়। পরে হাসপাতালে ফের স্বজনদের উত্তেজিত হতে দেখা দিলে পুলিশের সহায়তায় পরিস্থিতি শান্ত হয়।

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন