ব্রেকিং নিউজঃ
শেখ ইমাম উদ্দীন সংসদের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মন্টু আওয়ামীলীগের প্রয়াত নেতাদের কবর জিয়ারত ও গণ সংযোগ পাটকেলঘাটায় মাদকদ্রব্য সহ কথিত পেশাজীবিলীগ নেতা আব্দুর রহমান গ্রেফতার তালায় জাতীয় মহিলা সংস্থা উদ্যোগে ৩৭ জন মহিলাদের মাঝে ক্ষুদ্র ঋণের চেক বিতরণ তালায় যুব পানি কমিটির প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত তালায় শিশু পাচার প্রতিরোধ ও সুরক্ষায় দুইদিনের কর্মশালার উদ্বোধন পা হারানো জাফরকে চায়ের দোকান করে দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত রাখলেন পাইকগাছা ইউএনও এ বি এম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী আওয়ামীলীগ ও বিএনপি মনোনীত দু’জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা তালায় দলিত জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন শীর্ষক মতবিনিময় সভা সাতক্ষীরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে বীরমুক্তিযোদ্ধা বদু বিজয়ী

খয়রাতি’ লিখে ক্ষমা চাইলো আনন্দবাজার পত্রিকা

অনলাইন ডেস্ক:

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৩ জুন ২০২০, ১৭:৩১
  • ১৭১

‘বাণিজ্যিক লগ্নি আর খয়রাতির টাকা ছড়িয়ে বাংলাদেশকে পাশে পাওয়ার চেষ্টা নতুন নয় চিনের।’ কলকাতার প্রভাবশালী আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনের এই বাক্যে ‘খয়রাতি’ শব্দের ব্যবহারে আহত হন বাংলাদেশের সচেতন নাগরিক সমাজ। তীব্র সমালোচনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব হন তারা। এরই প্রেক্ষিতে পত্রিকাটি নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়েছে।

মঙ্গলবারের পত্রিকায় ‘ভ্রম সংশোধন’ দিয়ে ক্ষমা চায় আনন্দবাজার কর্তৃপক্ষ। ভ্রম সংশোধন শিরোনামে লিখেছে ‘লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেজিং’- শীর্ষক খবরে খয়রাতি শব্দের ব্যবহারে অনেক পাঠক আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য আমরা দুঃখিত ও নিঃশর্ত ক্ষমাপ্রার্থী।’

গত ২০ জুন আনন্দবাজার পত্রিকায় ‘লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেজিং’- শীর্ষক এক প্রতিবেদনের শুরুতেই ‘বাণিজ্যিক লগ্নি আর খয়রাতির সাহায্য ছড়িয়ে বাংলাদেশকে পাশে পাওয়ার চেষ্টা চীনের নতুন নয়’ বলে লেখা হয়। ২১ জুন আনন্দবাজার পত্রিকার বাংলাদেশ প্রতিনিধি কুদ্দুস আফ্রাদ এই রিপোর্টের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, আমি স্পষ্ট করে জানাতে চাই, এ রিপোর্ট আমার লেখা নয়। আমি নিজে এ রিপোর্টের প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

আরও পড়ুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৩২,৭৯৩,২১৯
সুস্থ
২৪,১৯১,৪৫১
মৃত্যু
৯৯৩,৯৭২