আজ || শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২
শিরোনাম :
  তালায় কিশোরীদের মাঝে স্যানিটারী ন্যাপকিন বিতরণ       সাতক্ষীরায় বাস্তচ্যুত ব্যক্তিদের অধিকার আদায়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত       সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহকে ফুলের শুভেচ্ছা জানালো জাতীয় মহিলা সংস্থা তালা শাখা       নিরামিষ সবজি রান্নার রেসিপি       তালায় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে মানববন্ধন       বাস্তচ্যুত ব্যক্তিদের অধিকার আদায়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত       চুকনগরে ৪০ পরিবারের মাঝে গাছসহ কৃষি উপকরণ বিতরণ       শ্যামনগর উপজেলা মডেল মসজিদের পাইলিং ঢালাইয়ের শুভ উদ্ধোধন       তালায় ট্রাক-ইজিবাইকের সংঘর্ষে নারী নিহত       জেলা প্রশাসকের সাথে বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা বিনিময়    
 


খুলনার পাইকগাছা পৌরসভার প্রধান সড়কের কার্পেটিং কাজের উদ্ভোধন

খুলনার পাইকগাছা পৌরসভার ১ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত জনগুরুত্বপূর্ণ প্রধান সড়ক সংস্কারের কার্পেটিং এর কাজ শুরু করা হয়েছে। সোমবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কার্পেটিং কাজের শুভ উদ্ভোধন করেন পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র এসএম ইমদাদুল হক, কাউন্সিলর এসএম তৈয়েবুর রহমান, সহকারি প্রকৌশলী এম নূর আহম্মাদ, শেখ মঈদ উদ্দীন ও ঠিকাদার মিরাজুল ইসলাম। উল্লেখ্য পৌরসভার জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে পৌর বাজার পর্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ প্রধান সড়কটি এক সময়ে সড়ক ও জনপদ বিভাগের অধিনে ছিলো। জিরো পয়েন্ট থেকে শিববাটি ব্রীজ হয়ে খুলনার সাথে কয়রা উপজেলার নতুন সংযোগ যোগাযোগ স্থাপন হওয়ায় জিরো পয়েন্ট থেকে শিববাটী পুরাতন লঞ্চ ঘাট পর্যন্ত ২ কিলোমিটার রাস্তা সড়ক ও জনপদ বিভাগ অনেকটাই অঘোষিতভাবে সড়কের হাল ছেড়ে দিলে সড়কটি অভিভাবকহীন হয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে জনস্বার্থের কথা বিবেচনা করে সড়কটি দেখভাল করার দায়িত্ব নেয় পৌর কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষ দায়িত্ব নিলেও মানসম্মতভাবে সংস্কার করতে না পারায় জরাজীর্ণ হয়ে পড়ে গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি। উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা ও মূল সদরে যাতায়াতের সড়কটি একমাত্র মাধ্যম হওয়ায় যাতায়াতের দূর্ভোগ নিয়ে জনমনে কিছুটা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। অবশেষে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর হলেও জনগুরুত্বপূর্ণ প্রধান সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু করতে পেরেছেন পৌর কর্তৃপক্ষ।

জিরো পয়েন্ট থেকে থানা সংলগ্ন কাঁকড়া ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি পর্যন্ত ১ হাজার ৪৭০ মিটার দৈর্ঘ্য সড়কটি সংস্কারের জন্য দুটি ভাগে টেন্ডার আহবান করা হয়। যার সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয় ১ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা। সংস্কার কাজ বাস্তবায়ন করছে পারভেজ এন্টারপ্রাইজ ও জোহা এন্টারপ্রাইজ নামে দু’টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান।

সোমবার সকালে সড়কের প্রথম অংশের কার্পেটিং কাজের উদ্ভোধন শেষে মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর বলেন-এবার মানসম্মতভাবে সড়ক সংস্কার করা হচ্ছে। পূর্বের ৫ মিটার এর স্থলে ১ মিটার বর্ধিত করে ৬ মিটার প্রশ্বস্ত করা হয়েছে। ৪ ইি ডব্লিউ বিএম (খোয়া) ও ৪০ মিঃ মিঃ ডেন্স কার্পেটিং করা হয়। আগামী দু’একদিনের মধ্যে কার্পেটিং এর কাজ শেষ হবে বলে আশা করছি। সম্পূর্ণ কাজ শেষ হলে যাতায়াতে সাধারণ মানুষের আর কোন দূর্ভোগ থাকবে না বলে মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান।


Top