আজ || বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২
শিরোনাম :
 


‘কে প্রথম কাছে এসেছি, কে প্রথম ভালোবেসেছি’

বিয়ের সাজে সনি পোদ্দার ও বিদ্যা সিনহা মিমবিয়ের সাজে সনি পোদ্দার ও বিদ্যা সিনহা মিম।
লগ্ন ছিল দুপুর নাগাদ। প্রস্তুতি শুরু হয়েছে আরও আগে। রেডিসন ব্লুর পুলসাইডে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে অতিথিদের সমাগম। অভিনেত্রী মিমের বিয়ে বলে কথা। আগত অতিথিরাও মিস করতে চাননি শুভক্ষণটি। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার রেডিসনের পুলসাইটেই হয়ে গেল বিদ্যা সিনহা মিমের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। অগ্নিসাক্ষী রেখে সনি পোদ্দারের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়লেন মিম। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা কিছুটা গুছিয়ে এলে নিজের ফেসবুক পেজে সবার সঙ্গে শেয়ার করলেন জীবনের এই বিশেষ মুহূর্তের অনুভূতি। নিজের পোস্টে লিখলেন—

‘কে প্রথম কাছে এসেছি

কে প্রথম চেয়ে দেখেছি,

কিছুতেই পাই না ভেবে

কে প্রথম ভালোবেসেছি,

তুমি না আমি?’

শুভক্ষণ, শুভ দিন। বহু বছরের দীর্ঘ প্রণয়ের পর সাত পাকে বাঁধা পড়লাম আমরা। জীবনের নতুন অধ্যায়ের জন্য সব ভক্ত, শুভানুধ্যায়ীর কাছে শুভকামনা প্রার্থী।’

বর-কনের মেকআপ করেছে এলিগেন্ট মেকওভার অ্যান্ড ফ্যাশন। মিম পরেছেন সব্যসাচীর ডিজাইন করা পোশাক। লাল লেহেঙ্গার সঙ্গে মানানসই দোপাট্টা আর পায়ে রাজস্থানের চপ্পল। দারুণ দেখাচ্ছিল মিমকে। সনি পোদ্দার পরেছিলেন ওয়াহিদা’স নান্দনিক কালেকশনসের পোশাক। গোলাপি আর ক্রিম রঙের পোশাকে সেজেছিলেন সনি। রেডিসনের পুরো পুলসাইটটি দৃষ্টিনন্দন করে সাজিয়ে তুলেছিল এসকে ইভেনজ।

বর-কনেকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়েছিলেন অভিনয়শিল্পী আসাদুজ্জামান নূর, মীর সাব্বির, সজল, ফারজানা চুমকি, ঈশিতা, রুনা খান, সাফা কবীর, ফারিয়া শাহরিন, কণ্ঠশিল্পী কোনাল, নির্মাতা অমিতাভ রেজা, মাবরুর রশীদ বান্নাহসহ অনেকেই। ছিলেন দুই পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-পরিজন।

মিম জানিয়েছেন, হানিমুনে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে, তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন পরে।

গত ১০ নভেম্বর মিমের জন্মদিনে বাগদান হয় মিম ও সনির। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সেই আয়োজনটি ছিল একেবারেই পারিবারিক। সেদিনই প্রথম নিজেদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে বলেছেন মিম।

কুমিল্লার ছেলে সনি পোদ্দার একজন ব্যাংক কর্মকর্তা। পরিবারের একমাত্র ছেলে সনির বড় দুই বোন রয়েছে। একজন থাকেন কিশোরগঞ্জে, অন্যজন দেশের বাইরে।

মিম ও সনির সম্পর্কের শুরু ছয় বছর আগে। এই সময়ে নিজেদের মধ্যে চমৎকার বোঝাপড়াও হয়ে গেছে বলে জানিয়েছেন মিম। অবশেষে দুই পরিবারের সম্মতি আর আলোচনার মধ্য দিয়েই শুভ পরিণয়ে রূপ নিল মিম-সনির প্রেম।


Top