একদিকে করোনা, অন্যদিকে নির্বাচন : জনমনে আতংক

তালা নিউজ ডেস্ক ::
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৬ জুন, ২০২১

তালা উপজেলাসহ সীমান্তবর্তী সাতক্ষীরা জেলায় মহামারি করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) যে সময় ভয়াবহ রুপ নিয়েছে ঠিক তখনি শুরু হয়েছে নির্বাচনী তৎপরতা। এর ফলে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ও আতংকের সৃষ্টি হয়েছে। তবে উপজেলা নির্বাচন অফিস বলছে, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মেনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এদিকে স্বাস্থ্য বিভাগ বলছে, করোনা পরিস্থিতি সীমান্ত এলাকায় ভয়াবহ রুপ নিয়েছে। এতে জনসমাগম আদৌও সঠিক নয়। অন্যদিকে উপজেলা প্রশাসন করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় ইতোমধ্যে উপজেলাব্যাপী শুরু করেছেন জনসচেতনামুলক মাইক প্রচার, চলছে ভ্রাম্যমান আদালত। ফলে বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আতংকের পাশাপাশি বিপাকে রয়েছে সাধারণ মানুষ। এদিকে দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সাতক্ষীরা জেলাতে বিশেষ লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন। স্থানীয় সুধিমহল জানান, একদিকে করোনার প্রকোপ অন্যদিকে লকডাউন। নির্বাচন মানেই জনসমাগম আর জনসমাগম না করে কিভাবে নির্বাচন করবে প্রার্থীরা। বর্তমান পরিস্থিতিতে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়ে চলছে নানান গুঞ্জণ। তালা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও বর্তমান নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সরদার জাকির হোসেন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম ধাপের নির্বাচন গত ১১ এপ্রিল নির্ধারিত দিন থাকলেও মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কারণে তা স্থগিত করেন নির্বাচন কমিশন। পুনরায় আগামী ২১ জুন নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। বর্তমানে দেশে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় সাতক্ষীরা জেলাতে বিশেষ লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন। এরমধ্যে স্বাস্থ্য বিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তিনি নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানান। তালা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রাহুল রায় জানান, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ মেনে আমাদের চলতে হবে। নির্দেশনা ছাড়া কোন কিছু করা হবে না। তালা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রাজীব সরদার জানান, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শুরুর থেকে এ পর্যন্ত ৭১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৭৮ জন সনাক্ত হয়েছেন, একজন স্টাফ নার্সসহ ৪ জন মৃত্যুবরণ করেছেন, ২ জন হোম করেনটাইনে আছেন এবং বাকিরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। হাসপাতালে বর্তমানে ২টি ওয়ার্ড করোনা রোগীর জন্য সংরক্ষিত রাখা হয়েছে। এতে বর্তমান ১৬ জন জ¦রের রোগী ভর্তি আছে তবে তাদের পরীক্ষা না করে পজেটিভ বলা যাবে না। পূর্বের তুলনায় বর্তমানে করোনার প্রকোপ অনেকাংশে বেশি হলেও এলাকার সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে জনসমাগম একবারে নিষিদ্ধ বলে জানালেন উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের এই কর্মকর্তা। তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিফ-উল-হাসান জানান, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর ভয়াভহ পরিস্থিতি মোকাবেলায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে এবং এক সপ্তাহের জন্য বিশেষ লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। এ সময় তিনি আরো বলেন, জেলা প্রশাসকের সাথে জনপ্রতিনিধিদের আলোচনা সভা হয়েছে। জেলা প্রশাসক সার্বিক বিষয় নিয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত একটি প্রতিবেদন পাঠিয়েছেন। আশা করি কিছু দিনের মধ্যে নির্বাচন কমিশন সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে একটি ফলাফল দেবেন। তালা উপজেলার পরিষদের চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার জানান, নির্বাচন থেকে মানুষের জীবন অনেক বড়। করোনা ভাইরাসের এ অবস্থায় জনসমাগম একেবারেই ঠিক না। এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে কার করোনা আছে বোঝা মুশকিল। এমতাবস্থায় নির্বাচন করা যুক্তিযুক্ত হবে বলে মনে করছেন না এই জনপ্রতিনিধি।

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

আরও পড়ুন