ব্রেকিং নিউজঃ
আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় স্ত্রী মিন্নিসহ ছয়জনের ফাঁসি খুলনা বিএনপি নেতা সাহারুজ্জামান মোর্তুজার স্ত্রীর ইন্তেকাল কপিলমুনিতে অভিযান চালিয়ে ৪ জুয়াড়ী আটক তালায় ২৬ সিআইজি সদস্যদের মাঝে উপকরণ বিতরণ তালায় জলাবদ্ধতায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে উত্তরণের ত্রাণ সহায়তা পাইকগাছার কপিলমুনিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম জন্মদিন পালন তালায় বেদে সম্প্রদায়ের মাঝে জেলা পুলিশের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির স্ত্রীর মৃত্যুতে তালা প্রেসক্লাবের শোক পাইকগাছার লতায় জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪ তম শুভ জন্মদিনপালন স্কুল ছাত্রী নীলা রায় হত্যার প্রতিবাদে তালায় মানববন্ধন

ইউপি নির্বাচন : আবারো জনগনের চাওয়া পাওয়া প্রণব ঘোষ বাবলু

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৩০
  • ২৭৪
প্রণব ঘোষ বাবলুর

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার খলিলনগর ইউনিয়ন পরিষদের আগামীনির্বাচনকে সামনে রেখে আবারো জনগনের চাওয়া পাওয়াকে কেন্দ্র করে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান ও তালা প্রেস ক্লাবেন সভাপতি প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু। আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের সাথে মতবিনিময় ও প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।সকল মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়াচ্ছেন তিনি

ইউনিয়নের বাজার ঘাটে সাধারণ মানুষের সাথে চায়ের আড্ডা থেকে শুরু করে বিয়ে,জন্মদিন,মৃত্যুদিবস সহ সকল রাজনৈতিক সামাজিক ,ক্রীড়াএবং সাংস্কৃতিক অঙ্গনে তার অংশগ্রহণ এবং সহযোগীতা ইউনিয়নবাসীর অজানা নয়।

স্থানীয়দের দাবি, আগামী নির্বাচনে যদি আবারো সাবেক চেয়ারম্যান প্রণব ঘোষ বাবলু জয়যুক্ত হয় তাহলে খলিলনগর ইউনিয়নের উন্নয়নের ধারা তিনি যেভাবে অব্যাহত রেখেছিলেন তার ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। তার ১০বছরের আমলে খলিলনগরে রাস্তা ঘাট,মসজিদ মন্দির সহ সামাজিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে বলেও ইউনিয়নবাসীর দাবি।বীর মুক্তিযোদ্ধা বিশ্বাস কোহিনুর ইসলাম বলেন, প্রভাষক প্রনব ঘোষ বাবলুর আমলে ইউনিয়নের প্রায় সকল মসজিদ মন্দিরে টি আর পেয়েছিলাম।কিন্তি গত চার বছরে ইউনিয়ন পরিষদ হতে তেমন কোন সাহায্য মসজিদ মন্দির পায়নি।প্রণব ঘোষ বাবলু এখন চেয়ারম্যান না থাকলেও এম পি সাহেবের নিকট হতে এনে ইউনিয়নে ৮৫ টি সোলারের রোড লাইট স্থাপন করেছে।

মাওলানা মাহাফুজুর রহমান বলেন,প্রণব ঘোষ বাবলু আমাদের দাবীর প্রেক্ষিতে মাছিয়াড়া ঈদ গাহে ৫০০০০ টাকা ও মাছিয়াড়া সানা পাড়া মসজিদে ৫০০০০টাকা বরাদ্ধ করেছেন।

নলতার শিক্ষক জাহিদুর রহমান বলেন,প্রনব ঘোষ বাবলু পূর্ব নলতা মসজিদে সম্প্রতি ৫০০০০ টাকা ও পূর্ব নলতা ঈদগাহে একটি রোড লাইট বরাদ্ধ প্রদান করেছেন।

খলিলনগর মসজিদের ইমাম মাওলানা হারুন অর রশীদ বলেছেন,খলিলনগর ইউনিয়নের স্কুল,মার্কেট,রাস্তা,মসজিদ,মন্দিরের দৃশ্যমান উন্নয়র প্রণব ঘোষ বাবলুর আমলেই হয়েছে।

গংগারামপুর গ্রামের গাজী মোসলেম এ প্রতিবেদককে বলেন,গত চার বছরে নতুন রাস্তা তেমন হয়নি।কিন্তু বর্তমান চেয়ারম্যান রাজু যদি প্রনবের আমলে নির্মিত রাস্তাগুলি সংস্কার করতো,তাহলেও মানুষ চলতে পারতো।

দাশকাটি গ্রামের গাজী সাইদুর রহমান বলেন, শালতা তীরের এবারের জলাবদ্ধ এলাকার পানি নিস্কাষনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে প্রণব ঘোষ বাবলুর ভুমিকা প্রশংসনীয়।

দীপায়ন,সালাউদ্দীন,বাহারুল,
রহমতের মতো শিক্ষিত যুবকদের মতে ,একজন সৎ,যোগ্য নীতিবান মানুষ হিসেবে এ জনপদের মানুষের কাছে প্রণব ঘোষ বাবলু একজন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি।

এছাড়াও ইউনিয়নের মাছিয়ারার মোঃ কাশেম মোড়ল বলেন, সাবেক চেয়ারম্যান প্রণব ঘোষ বাবলু আ ফ ম জনগনের একজন জনপ্রিয় মানুষ। ইউনিয়নবাসী তাকে আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়। তার সময়ে ইউনিয়নে বহু উন্নায়ন হয়েছে আগামীতেও তার এ ধারাবাহিকতা আমরা দেখতে চায়।

খলিলনগরের রমজান সরদার বলেন,মানুষ হিসেবে আমরা এক নামে এক ডাকে তাকে পাশে পায়।আমাদের মতো গরীব অসহায় মানুষের বিপদে আপদে তাকে যখন ডাকি তখনি তাকে পাশে পায়। তিনি আমাদের সকল কাজে পাশে থাকেন।আমরা ইউনিয়নবাসী আবারো তাকে আমাদের ইউনিয়নের অভিভাবক করতে চায়।

আগামী নির্বাচন নিয়ে প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু এ প্রতিবেদককে বলেন,আমি চেষ্টা করেছি আমার সময়কালে খলিলনগর ইউনিয়নের প্রতিটি কাজকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে।গত চার বছরে উন্নয়নে খলিলনগর ইউনিয়নের মানুষ অনেক পিছিয়ে পড়েছে।আমার অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ নামাতে ইউনিয়নবাসীর পাশে আরো একটিবার দাঁড়াতে চাই। দল মত নির্বিশেষ জনগন আবারে আমাকে জয়যুক্ত করবে এটা নিয়ে আমি আশাবাদী।

এভাবেই ইউনিয়নের প্রায় প্রতিটি বাজার,রাস্তা,ঘাটে বিশেষ করে চায়ের দোকান,সেলুনিতে তাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে আগামী নির্বাচনে আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে পাওয়ার জন্য। তবে সময়ের অপেক্ষা,কে হবে খলিলনগরের আগামী পাঁচ বছরের অভিভাবক সেটা দেখার জন্য।

অন্যকে জানাতে শেয়ার করুন

আরও পড়ুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৩৪,১৬৬,৬৩৩
সুস্থ
২৫,৪৩৭,০৪২
মৃত্যু
১,০১৮,৮৭৬