আজ || বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম :
  তালায় ৮ দলীয় নকআউট ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত       শ্যামনগরে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্পের মুক্ত আলোচনা       সাতক্ষীরার চারটি সংসদীয় আসনে ৩৭ জনের মধ্যে একজনের মনোনয়ন পত্র বাতিল, বাকী ৩৬টি বৈধ ঘোষণা       তালার খলিলনগরে মানব পাচার প্রতিরোধ কমিটির সভা       সাতক্ষীরার সংসদীয় আসনের ২৩ প্রার্থীর মনোনয়পত্র যাচাই বাছাই শেষে একটি বাতিল ঘোষণা       বর্জ্য পরিবহনের জন্য সাতক্ষীরা পৌরসভায় ৬টি ভ্যান হস্তান্তর       তালায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত       বিএনপি জামায়াতের নৈরাজ্য রুখতে যুবলীগ’ই যথেষ্ট-ফিরোজ আহমেদ স্বপন       সাতক্ষীরায় দৈনিক আমার সংবাদের প্রতিনিধিদের মতবিনিময়       তালায় সেলাই মেশিন ও নগদ অর্থ বিতরণ    
 


আম্ফানে খুলনায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ৪ লাখ মানুষ

শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে খুলনা জেলার নয়টি উপজেলার ৮৩ হাজার ৫৬০টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ক্ষতিতে পড়েছেন চার ৪৫ হাজার লাখ মানুষ।

সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছে সুন্দরবন সংলগ্ন উপকূলীয় উপজেলা কয়রা। সেখানে ওয়াবদার বাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকে গেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) খুলনা জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আজিজুল হক জোয়ার্দ্দার এ তথ‌্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, আম্ফানে খুলনার নয়টি উপজেলার ৬৮টি ইউনিয়নে কম বেশি ক্ষতি হয়েছে। কয়রা ও দাকোপে বাঁধ ভেঙে গেছে। বুধবার (২০ মে) রাতে দুই লাখ সাত হাজার মানুষ ৮১৪টি সাইক্লোন সেন্টারে আশ্রয় নেন। তবে ঘূর্ণিঝড়ে খুলনায় কোনো মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি।

কয়রা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার মো. জাফর রানা বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে কয়রার চারটি ইউনিয়নের ৫২টি গ্রাম সম্পূর্ণ এবং আরও দুটি ইউনিয়নের ২৪টি গ্রাম আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২১টি স্থানে বাঁধ ভেঙ্গে গেছে। ৫১ হাজার ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর ফলে এক লাখ ৮২ হাজার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’


Top